শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:১৬ অপরাহ্ন

বন্ধু আমার পথচলার সঙ্গী

বন্ধু আমার পথচলার সঙ্গী

বন্ধু দিবস । তামান্না আক্তার

বন্ধু আমার পথচলার সঙ্গী

জীবনে চলার পথে নানা ধরনের মানুষের সাথে আমাদের পরিচয় ঘটে। কিছু মানুষ আগে থেকে পরিচিত থাকে আর কিছু অপরিচিত। অচেনা অপরিচিত হয়েও তারা হয়ে যায় অনেক কাছের, অতি পরিচিত। এক ধরনের আত্মার সম্পর্ক গড়ে ওঠে তাদের সাথে, যেন চিরচেনা এক নিবিড় সম্পর্ক। জীবনে চলার পথে কিছু মানুষের সাথে নিঃস্বার্থ সম্পর্ক হয় তাকে বন্ধুত্ব বলে। বন্ধুত্ব নামক সম্পর্কে থাকে না কোনো লাভ বা ক্ষতির হিসাব, থাকে না কোন লুকোচুরি। বন্ধু মানে বিশ্বাসের জায়গা। যার কাছে মন খুলে সব বলা যায়। মনের লুকানো সব কথা তার সাথে অনায়াসে বলা যায়। বন্ধু হতে পারে যে কেউ। সে হতে পারে সহপাঠী, আত্মীয়-স্বজন, প্রতিবেশী, অপরিচিত কেউ কিংবা পরিবারের সদস্য। বন্ধুত্বের কোন বয়সসীমা নেই। সমবয়সীরা যেমন বন্ধু হতে পারে তেমনি বয়সে ছোট -বড়রাও বন্ধু হতে পারে। কেবল মনের ও আত্মার বন্ধন থাকলে বন্ধু হওয়া যায়।

বন্ধুত্বের প্রতি ভালোবাসা আর শ্রদ্ধাবোধ নিয়ে প্রতিবছর বন্ধু দিবস পালন করা হয়। বন্ধু দিবসের উৎপত্তি হয়েছিল যুক্তরাষ্ট্রে। ১৯১৯ সালে সর্বপ্রথম আগস্ট মাসের প্রথম রোববার বন্ধু দিবস হিসেবে পালন করা হয়। তবে অন্য আরেকটি তথ্য মতে, ১৯৩৫ সালে আমেরিকার সরকার এক ব্যক্তিকে হত্যা করেছিল। দিনটি ছিল আগস্টের প্রথম শনিবার। তার প্রতিবাদে পরদিন ওই ব্যক্তির এক বন্ধু আত্মহত্যা করেন। এরপর থেকে নানা ক্ষেত্রে বন্ধুদের অবদানের প্রতি সম্মান জানাতে আমেরিকার কংগ্রেসে ১৯৩৫ সালে আগস্টের প্রথম রোববারকে বন্ধু দিবস হিসেবে পালনের সিদ্ধান্ত নেয়। এদিনে বন্ধুরা নিজেদের মধ্যে কার্ড, ফুল উপহার বিনিময় করে দিবসটি উদযাপন করে থাকে, পুরাতন ও নতুন বন্ধুদের মিলন মেলায় উদযাপিত হয় দিনটি।

জীবনের গতিময়তায় আমরা নানা ধরনের বন্ধুর মুখোমুখী হয়। কিছু ভালো বা সৎ বন্ধু আর কিছু মন্দ বা অসৎ বন্ধু । অসৎ বা বিকৃত বন্ধুগুলোর মন-মানসিকতার থাকে তাদের স্বার্থ কেন্দ্রিক। মুখে মিষ্টি ভাষা থাকলেও অন্তরে থাকে কুমন্ত্রণা, এ যেন মুখে মধু বুকে বিষ কথারই প্রতিফলন। বক্ষ্য মেলে বুকে টেনে নিলেও পিঠে ছুরি নিক্ষেপ করতে কখনো পিছুপা হয় না। এরা কখনো বন্ধুদের সুপরামর্শ বা সঠিক পথ দেখায় না। অন্যদিকে সৎ বন্ধুদের মন থাকে সাদা তারা সবসময় নিজের বন্ধুর দিকগুলো বড় করে দেখে। নিজের সর্বোচ দিয়ে বন্ধুর সহযোগিতা করার জন্য এগিয়ে আসে সর্বক্ষেত্রে। এরা সব সময় শুভচিন্তক হয়। কি করলে তার বন্ধুটির উপকার হবে, কোনটা তার জন্য ভালো কিংবা মন্দ, এসব দিকে তারা সবসময় নজর দিয়ে থাকে। নিজের থেকে বন্ধুর স্বার্থকে তারা বড় করে দেখে। বন্ধুর জন্য সবার সাথে নির্বিকার লড়াই করে যায়।

এরিস্টটল বলেছেন- প্রতিটি নতুন জিনিসকে উৎকৃষ্ট মনে হয়। কিš বন্ধুত্ব যতই পুরাতন হয় ততই উৎকৃষ্ট ও দৃঢ় হয়। সময়ের সাথে সাথে বন্ধুত্বটা আরও মজবুত হয়ে ওঠে। অনেকসময় বিপদের মুহুর্তে বন্ধু আমাদের একমাত্র সম্বল। জীবনে এমন অনেক বিপদ আসে যা পরিবার বা নিকটাত্মীয়ের কাছে বলা যায় না। কিš একজন বিশ্বস্ত ও কাছের বন্ধুর কাছে সবকিছু মন খুলে বলা যায়। নিজের কষ্টে বন্ধু কে আপন করে নেওয়া যায়। বন্ধুর সাথে কথা বলে সকল অবসাদ ডিপ্রেশন থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। এমন বন্ধু অনেক সময় নিজের রক্ত সম্পর্কীয় আত্মীয় থেকে অনেক বেশি আপন হয়ে ওঠে।

সৎসঙ্গে স্বর্গবাস অসৎ সঙ্গে সর্বনাশ উক্তিটি বন্ধুত্বের সাথে সম্পর্কিত। প্রাত্যহিক জীবনে আমাদের পরিচিতি সৎ বন্ধুগুলো যেমন ভুল থেকে বাঁচিয়ে আলোর পথ দেখায় তেমনি অসৎ বন্ধুগুলো জীবনের মোড় ঘুরিয়ে দেয় ধ্বংসের দিকে। তাই বলা হয় সঙ্গদোষে লোহা ভাসে। তথ্যপ্রযুক্তির যুগে আমাদের বন্ধুত্বটা সীমাবদ্ধ হয়ে গেছে ফেসবুকে মেসেঞ্জারে। ভার্চুয়াল জগতে আমরা নানা ধরনের বন্ধু তৈরি করে থাকি কিš তার স্থায়িত্ব হয় একদিন, দুদিন বা কয়েক মাস। এমন বন্ধত্বে থাকে না কোন বিশ্বাস বা আ¯ার জায়গা। তবে সবকিছু ছাপিয়ে জীবনে সৎ বন্ধুর গুরুত্ব অপরিসীম। জীবনের মোড় ঘুরিয়ে সফলতার পথ দেখাতে পারে ভালো বন্ধুগুলো। তবে বন্ধুত্ব হোক ভালোবাসার প্রতীক, তা যেন কেবল দিবসে সীমাবদ্ধ না থাকে।

লেখক : শিক্ষার্থী, সমাজবিজ্ঞান বিভাগ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved 2018 shilonbangla.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com