মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ১০:১৫ পূর্বাহ্ন

দরপত্র দিয়ে উড়োজাহাজ লিজ নিতে ব্যর্থ বিমান

দরপত্র দিয়ে উড়োজাহাজ লিজ নিতে ব্যর্থ বিমান

নিজস্ব প্রতিবেদক : এবার হজ ফ্লাইট পরিচালনার জন্য চারটি সুপরিসর (ওয়াইড বডি) উড়োজাহাজ লিজ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল রাষ্ট্রায়ত্ত উড়োজাহাজ পরিবহন সংস্থা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস। এজন্য আন্তর্জাতিক দরপত্রও আহ্বান করা হয়। তবে দরপত্র মূল্যায়নসহ সব প্রক্রিয়ার পরও শেষ পর্যন্ত সর্বনিম্ন দরদাতার সঙ্গে চুক্তি করতে পারেনি বিমান কর্তৃপক্ষ। এ অবস্থায় সময়স্বল্পতার কারণ দেখিয়ে দরপত্র ছাড়াই সরাসরি চুক্তির মাধ্যমে দুটি উড়োজাহাজ লিজ নিয়েছে বিমান।
বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস সূত্রে জানা গেছে, গত হজ মৌসুমে নিজস্ব উড়োজাহাজের পাশাপাশি লিজের উড়োজাহাজেও হজযাত্রী পরিবহন করে বিমান। নিজস্ব উড়োজাহাজে হজ ফ্লাইট চালাতে গিয়ে সে সময় বিভিন্ন আন্তর্জাতিক রুটের ফ্লাইট শিডিউল কাটছাঁট করতে বাধ্য হয় সংস্থাটি, যার বিরূপ প্রভাব পড়ে অগ্রিম টিকিট কিনে রাখা যাত্রীদের ওপর। এ ধরনের সংকট যাতে না হয়, সেজন্য চলতি বছর আগে থেকেই সুপরিসর চারটি উড়োজাহাজ লিজ নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় বিমান। গত বছরের ২০ নভেম্বর অনুষ্ঠিত বিমান পরিচালনা পর্ষদের ২০১তম সভায় ২০১৮ সালের হজ মৌসুমে বিমানের শিডিউল অপারেশন অব্যাহত রাখার লক্ষ্যে চারটি সুপরিসর উড়োজাহাজ সংগ্রহের অনুমোদন দেয়া হয়। ৩০০ আসনবিশিষ্ট ওইসব উড়োজাহাজের বৈমানিক, কেবিন ক্রুসহ (ওয়েট লিজ) লিজের সিদ্ধান্ত হয়।

গত ১৭ জানুয়ারি দরপত্র বাক্স খুলে মোট ছয়টি প্রস্তাবনা পায় বিমান। সব বিষয় পর্যালোচনা করে দক্ষিণ আফ্রিকার এম/এস এসিএমআই২৪ থেকে চারটি উড়োজাহাজের লিজ অনুমোদন করে কর্তৃপক্ষ। পরবর্তীতে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে চারটি উড়োজাহাজের পরিবর্তে দুটি উড়োজাহাজ সরবরাহ করতে সম্মত হয় তারা। যদিও এখন পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকাভিত্তিক এসিএমআই২৪ প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে দুটি উড়োজাহাজ লিজ নেয়ার বিষয়েও চুক্তি করতে পারেনি বিমান। এ অবস্থায় উড়োজাহাজ দুটি পাওয়া নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে।
অন্যদিকে বাকি দুটো উড়োজাহাজ সংগ্রহের জন্য দ্বিতীয় সর্বনিম্ন দরদাতা ফ্রান্সের এম/এস এলিকোর সঙ্গে যোগাযোগ করে বিমান। এলিকো থেকে জানানো হয়, তাদের প্রস্তাবিত উড়োজাহাজ এরই মধ্যে ভাড়া হয়ে গেছে। পরবর্তীতে সময়স্বল্পতার অজুহাতে মালয়েশিয়াভিত্তিক এম/এস ফ্লাই গ্লোবাল থেকে দরপত্র ছাড়াই সরাসরি দুটি উড়োজাহাজ লিজ নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় বিমান। এরই মধ্যে ৪০৬ আসনবিশিষ্ট দুটি বোয়িং ৭৭৭-২০০ ইআর উড়োজাহাজ ওয়েট লিজে সংগ্রহের জন্য ফ্লাই গ্লোবালের সঙ্গে চুক্তিও করেছে বিমান।
দরপত্র ছাড়া উড়োজাহাজ লিজ প্রসঙ্গে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা বণিক বার্তাকে জানান, প্রতি বছর হজ মৌসুম এলেই এক রকম ইচ্ছা করেই উড়োজাহাজের সংকট তৈরি করা হয় বিমানে। আবার দরপত্রের মাধ্যমে উড়োজাহাজ লিজ নেয়ার ক্ষেত্রেও এমন অবস্থা তৈরি করা হয়, যাতে শেষ পর্যন্ত সংকট ঠেকাতে দরপত্র ছাড়াই উড়োজাহাজ লিজ নেয়ার বিকল্প থাকে না। কারণ এর সঙ্গে জড়িত রয়েছে মোটা অংকের কমিশন বাণিজ্য।
জানা গেছে, চলতি বছর হজ গমনেচ্ছুদের ফ্লাইট আগামী ১৪ জুলাই শুরু হবে। এ বছর বাংলাদেশ থেকে মোট ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন হজে যাবেন। এর অর্ধেক পরিবহন করবে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস। বাকি অর্ধেক পরিবহন করবে সৌদিয়া এয়ারলাইনস।
এ প্রসঙ্গে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) শাকিল মেরাজ বলেন, আগামী হজ মৌসুমে সুষ্ঠুভাবে হজ কার্যক্রম পরিচালনার জন্য চারটি উড়োজাহাজ লিজ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। কারণ চলতি বছর বিমান প্রায় ৬৫ হাজার হজযাত্রী পরিবহন করবে। বহরের নিজস্ব উড়োজাহাজ দিয়ে এত বিপুলসংখ্যক হজযাত্রী পরিবহন করতে গেলে নিয়মিত ফ্লাইটে কাটছাঁট করতে হয়। এ কারণে ২০১৮ সালের সার্বিক ফ্লাইট শিডিউল অক্ষুণ্ন রাখতে আগে থেকেই চারটি বড় উড়োজাহাজ লিজ নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।
তিনি বলেন, উড়োজাহাজ লিজ নেয়ার জন্য বিমানে কমিটি রয়েছে। আশা করা যাচ্ছে, নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই উড়োজাহাজগুলো লিজ নেয়া সম্ভব হবে।
উল্লেখ্য, বর্তমানে বিমানবহরে রয়েছে চারটি বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর, চারটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ ও দুটি ড্যাশ-৮ কিউ ৪০০ উড়োজাহাজ। এসব উড়োজাহাজ দিয়ে ১৫টি আন্তর্জাতিক ও সাতটি অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করছে বিমান।
সূত্র : বণিকবার্তা

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved 2018 shilonbangla.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com