মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১, ০১:৫৪ পূর্বাহ্ন

আলেমের মুক্তি আনন্দের | নদভীর দিনলিপি | উবায়দুর রহমান খান নদভী

আলেমের মুক্তি আনন্দের | নদভীর দিনলিপি | উবায়দুর রহমান খান নদভী

আলেমের মুক্তি আনন্দের | নদভীর দিনলিপি | উবায়দুর রহমান খান নদভী

দিনলিপি ১৯ জুলাই ২০২১
গতকাল মাসিক নেয়ামত এর আগস্ট সংখ্যার সম্পাদকীয় ও একটি নিবন্ধ ফাইনাল করা হলো। অন্য কিছু লেখাও দেখে দিলাম। ইনকিলাবের ঈদসংখ্যা আজ কমপ্লিট। ছুটি ও পরের কয়েকদিনের লেখা, কলাম, প্রশ্নোত্তর প্রভৃতি সাজিয়ে আজ হজের খুতবা নিউজ দেখে দিয়ে অফিস শেষ।

একজনের অনুরোধে তার তিনশো পৃষ্ঠার পান্ডুলিপি রিভিউ করে দিলাম। অন্য একজন যোগাযোগ কম করায় রাগ করে আছেন। জরুরি কিছু ডকুমেন্টের খোঁজে এক বড় আলেম অফিসে তশরিফ আনেন। তাদের অনেকের নামে কঠিন মামলা। গতকাল ১৮ জুলাই দেশের বেশ ক’জন আলেম জামিনে মুক্ত হয়েছেন।

বৃহত্তর মোমেনশাহীর সিনিয়র আলেম হজরত মাওলানা সাদী এবং কিশোরগঞ্জের মাওলানা জামী তাদের মধ্যে আছেন। আমার এক ফুফাতো ভাই জিননা এবং সিলেটের মাওলানা আতাউল করিমের মাকসূদের মতো নির্বিরোধী শত শত আলেম এখনো কারাগারে। হাজারো আলেম এবার রমজান ও দুটো ঈদই কারাগারে পার করছেন।

জামিয়া রাহমানিয়া নিয়ে ঝামেলা এখন চরমে। শায়েখ পরিবারের এক সদস্যের সাথে বিস্তারিত আলাপ হলো। রাতে ফোন করলেন মাওলানা গহরপুরী সাহেব। মুফতি মনসুর সাহেবের সাথেও কথা হলো। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর তরফে একটি সালিস বোর্ড সমাধানের পথ বের করবে বলে রাত পৌনে একটায় খবর পেলাম।

যাত্রাবাড়ি হজরতের তত্ত্বাবধানে দেশের শীর্ষ আলেমগণ রাহমানিয়ার বিষয় সুরাহা করবেন বলেও মাওলানা মাহফুজুল হক সাহেবের কথায় জানতে পারলাম। হাদীসের ভাষ্য অনুযায়ী, নিজের ভাইকে জালিম ও মজলুম উভয় হালতেই সাহায্য কর। দুই ভাইয়ের মধ্যে সালিসি করার সময় নীতি হিসাবে এর চেয়ে উত্তম আর কিছু হতে পারে কি? শীর্ষ কারো সাথেই কয়েকদিন যোগাযোগ না রেখে সালিসির সময়টি পার করবো। দেখি তারা কী সিদ্ধান্ত নেন।

মাদরাসা খোলার কোনো ইশারা ইঙ্গিত পাচ্ছি না। শুধু হিফজ ও মকতব খোলা নিয়েও অনিশ্চয়তা কাটেনি। জানি না কোনদিকে যাচ্ছি আমরা। ঈদের পর সব কিছু আল্লাহর রহমতে সঠিক ট্র্যাকের উপর ফিরে আসুক, এটাই কামনা।

মহব্বতের একভাই একটি টুপি হাদিয়া নিয়ে এসেছেন। তিনটি ফুলের টবও দিয়েছেন তিনি। ফোনে এক বুযুর্গের সাথে দীর্ঘদিন পর লম্বা কথা হয়। মনে হলো তিনি মাওলানা আবু তাহের মিসবাহ ও মাওলানা আবদুল মালেক সাহেবানের সাথে তাঁর ফোনের পর আমার সাথে কথা বলেলেন। তিনি তাঁর সম্প্রতি দেখা একটি স্বপ্নের বিষয়ে কথা বলেন।

বর্তমানে দেশে বহু মানুষ নানা সমস্যায় রয়েছেন। আমার নিকটের জানাশোনা অনেক মানুষও। সুবিধা মতো খোঁজ খবর রাখার চেষ্টা করছি, তবে অতি সীমিত সাধ্য সঙ্গ দিচ্ছে না। ভীষণ সংকোচ ও মনোকষ্টে আছি। দেড়বছর যাবত মানুষ অন্য রকম ভোগান্তির শিকার।

কয়েকজন কাছের মানুষ ঈদের সময় স্মরণ করেছেন, একভাই কিছু পাওনা টাকা দেওয়ায় এদের আমি একটু হলেও শুভেচ্ছা পাঠাতে পারবো। বর্তমান সংকট মুহূর্তে পাওনা টাকা সময় মতো পাওয়াও আল্লাহর বড় রহমত। জীবিকার বড় এক অংশ অনাদায়ী কর্জ হিসাবে নানা জনের হাতে আটকা পড়ে আছে। সংকটকালে পেলে নিজের এবং আল্লাহর অন্য কিছু বান্দার কাজে লাগতো।

আল্লাহ ৯ জিলহজ্জ তারিখ মঙ্গলবার রোজা রাখার তওফিক দিন। নিজ এলাকার হিসাবে ৯ তারিখ, মানে ঈদের আগের দিনটিতে রোজা রাখা চাই। নবী করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, জিলহজ্জের ৯ তারিখের রোজায় আগের একবছর এবং পরের একবছরের গুনাহ মাফ হয়ে যায়।

গতরাতে পবিত্র কাবাগৃহের গিলাফ কিসওয়া বদল করা হলো। হাজিগণ মিনা আরাফাতে থাকাকালে বছরে একবার কাবার কালো গিলাফ পরিবর্তন করা হয়। ফরজ তওয়াফ করতে এসে হাজীরা আর ঈদের নামাজ পড়তে এসে মক্কাবাসী নতুন গিলাফ দেখতে পান।

হজ্জের সময় মন পড়ে থাকে মক্কা মদীনা আরাফাত মিনা মুজদালিফায়। কোভিড নাইনটিন এসে সব হিসাব পাল্টে দিয়েছে। হে আল্লাহ, আপনি আমাদের গুনাহ খাত্বা মাফ করে দিন। দয়া করে খুব দ্রুতই আবার মানুষের জীবন জীবিকা জগৎ ইবাদত সব স্বাভাবিক করে দিন।

লেখক : আলেম কথাসাহিত্যিক

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved 2018 shilonbangla.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com