শুক্রবার, ২৬ এপ্রিল ২০১৯, ০৮:৪৮ পূর্বাহ্ন

ভারতীয় ৬১৬ তারকার আহ্বান বিজেপিকে ভোট না দেওয়ার!

ভারতীয় ৬১৬ তারকার আহ্বান বিজেপিকে ভোট না দেওয়ার!

ভারতীয় ৬১৬ তারকার আহ্বান বিজেপিকে ভোট না দেওয়ার! শীলনবাংলা ডটকম : ভারতের আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে নরেন্দ্র মোদির দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) ও এর অঙ্গ সংগঠনগুলোকে ভোট না দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির ৬১৬ তারকা নির্মাতা, অভিনেতা ও লেখক।

বিবৃতিতে যে ৬১৬ জনের স্বাক্ষর রয়েছে, তাঁদের মধ্যে রয়েছেন আমোল পালেকর, অনুরাগ কাশ্যপ, লিলেট দুবে, নাসিরুদ্দিন শাহ, অভিষেক মজুমদার, মহেশ দত্তানি, কঙ্কনা সেনশর্মা, রত্না পাঠক শাহ ও সঞ্জনা কাপুর প্রমুখ।

১২টি ভাষায় প্রকাশিত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘দুর্বলদের সশক্তিকরণে, স্বাধীনতা রক্ষায়, পরিবেশ রক্ষায় ও বৈজ্ঞানিক চিন্তাভাবনার প্রসাকে ভোট দিন।’ আসন্ন নির্বাচন দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বলে উল্লেখ করে বলা হয়েছে, ‘৫ বছর আগে যে মানুষটি নিজেকে দেশের রক্ষাকর্তী হিসেবে চিহ্নিত করেছিলেন, তিনি তাঁর নীতির কারণে লক্ষ লক্ষ মানুষের জীবন ধ্বংস করে দিয়েছেন।’ নমোর জমানায় দেশের সংবিধান হুমকির মুখে রয়েছে বলে তোপ দেগে বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘আজ আমাদের ভালোবাসার সংবিধান বিপদের মুখে। গান, নাচ, হাসি বিপদের মুখে।’

শনিবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য ট্রিবিউন।

ভারতের খ্যাতনামা শিল্পীরা এক যৌথ বিবৃতিতে বলেছেন, ক্ষমতাসীন দল বিজেপিকে ভোটের মাধ্যমে প্রতিহত করুন। ধর্মান্ধতা ও ঘৃণাচর্চাকে ক্ষমতা থেকে সরাতে ভোট দিন।

বিবৃতিটি সম্প্রতি ভারতের জনগণের উদ্দেশ্যে স্বাক্ষরসহ প্রকাশ করেছেন শিল্পীরা। সেখানে স্পষ্ট ভাষায় তারা লিখেছেন, আসন্ন নির্বাচনে যেন ভারতের সচেতন জনগণ বিজেপি ও তার শরিকদের ভোট না দেন। বিজেপির কারণে ভারতের সংবিধান হুমকির মুখে বলেও উল্লেখ করা হয় বিবৃতিতে।

এতে স্বাক্ষর করেছেন বলিউডের বিখ্যাত অভিনেতা নাসিরউদ্দিন শাহ, শঙ্খ ঘোষ, নবনীতা দেবসেন, আমল পালেকর, নির্মাতা অনুরাগ কাশ্যপ, লিলেট দুবে, অভিষেক মজুমদার, মহেশ দত্তানি, কঙ্কনা সেনশর্মা, রত্না পাঠক শাহ ও সঞ্জনা কাপুরসহ বহু তারকা।

হিন্দি, বাংলা, তামিলসহ মোট ১২টি ভাষায় প্রকাশ করা হয় ওই বিবৃতি। সেখানে বলা হয়, দুর্বলদের সশক্তিকরণে, স্বাধীনতা রক্ষায়, পরিবেশ রক্ষায় ও বৈজ্ঞানিক চিন্তা-ভাবনার প্রসারকে ভোট দিন।

আসন্ন নির্বাচন দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বলে উল্লেখ করা হয়েছে বিবৃতিতে। সেখানে বলা হয়েছে, পাঁচ বছর আগে যে মানুষটি নিজেকে দেশের রক্ষাকর্তা হিসেবে চিহ্নিত করেছিলেন, তিনি তার নীতির কারণে লাখ লাখ মানুষের জীবন ধ্বংস করে দিয়েছেন।

তারা বলেন, ‘ভারত নামের ধারণাটাই আজ বিপন্ন। আজ হাসি, গান, নাচ সবই হুমকির মুখে। আমাদের সংবিধানও বিপন্ন। যে সব প্রতিষ্ঠানে যুক্তি, তর্ক, মতামত বিনিময়ের পরিসর ছিল, তাদের কণ্ঠরোধ করা হচ্ছে। প্রশ্ন করলে, মিথ্যার বিরুদ্ধে সরব হলে, সত্য বললে জাতীয়তাবাদবিরোধী বলে চিহ্নিত করা হচ্ছে।’

নিউজটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved 2018 shilonbangla.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com