রবিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৯:১৯ অপরাহ্ন

বাঁশ থেকে যখন কঞ্চি মোটা হয়ে যায়

বাঁশ থেকে যখন কঞ্চি মোটা হয়ে যায়

বাঁশ থেকে যখন কঞ্চি মোটা হয়ে যায়

রশীদ জামীল : বাংলাদেশে শত শত আলেম আছেন যারা মাওলানা নুরুল ইসলাম ওলিপুরির উস্তাদ হওয়ার যোগ্যতা রাখেন। কিন্তু সেইসব উলামায়ে কেরামও ওলিপুরিকে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের মুখপাত্র হিশেবে মেনে নিতে আপত্তি করেন না। কারণ কী?

মাওলানা নুরুল ইসলাম ওলিপুরি একজন জনপ্রিয় বক্তাও। এমন ওয়াইজ খুব কমই আছেন, আহলে ইলম যাকে শুনেন। ওলিপুরির মাহফিলে মাদরাসা ছাত্র/উস্তাদদের উপস্থিতিই বেশি লক্ষ করা যায়। কারণ কী?

তিনি খুব বড় আলেম বলে?

তিনি সবচে বড় হাদিস বিশারদ বলে?

তিনি বাংলাদেশের সবচে বড় মুফাসসির বলে?

কোনোটাই না। তারচে’ বড় আলেম আছেন। মুহাদ্দিস মুফাসসির আছেন। তারচে’ সুন্দর কণ্ঠধারী বক্তাও আছেন অনেক। তবুও তিনি প্রায় তিনযুগ থেকে কেন এত জনপ্রিয়? কারণটা কী?

কারণ, তিনি যুক্তির মাধ্যমে কোরআনের ব্যাখ্যা সমাজের কাছে তুলে ধরেন। তিনি প্রমাণ করবার চেষ্টা করেন কোরআনের একটি শব্দও অযৌক্তিক না। যারা তাঁকে শুনেন, তাঁরা ব্যাপারটি বুঝতে পারেন। বুঝতে পারেননি তাঁর নিজের সন্তান।

ওয়াজের অভিষেকেই পুত্র পিতার আইডিওলজির বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে বসলেন। আহলে হক আর আহলে বাতিলের যে ক্লাসিফিকেশন তিনি তুলে ধরলেন, কোরআনের বিধানকে যুক্তি দিয়ে উপস্থাপনকারীদেরকে আহলে হকের বাইরে ঠেলে দিলেন, সেখানে যে তার বাবার নাম প্রথম কাতারে চলে আসছে, ব্যাপারটি বুঝবার মতো বয়স, মেধা, ইলম বা আকল কোনোটাই তার মাঝে আছে বলে মনে হলো না।

কোরআনে কারিমের তাফসির করবার জন্য সতেরটি ইলমের দরকার হয়। কথাটি আমরা তার বাবার বয়ান থেকেও অনেকবার শুনেছি। আফসোস, তিনি যদি শুনতেন!

অবশ্য উদ্দেশ্য যদি হয় একটু সস্তা পরিচিতি, তাহলে তরিকা গলদ হলেও ট্যাকনিক ঠিকাছে। ভবিষ্যত ফকফকা। আজকাল ওয়াজের মার্কেটে বেশিরভাগ বস্তুই এই কোয়ালিটির।

লেখক : প্রবাসী গবেষক

নিউজটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved 2018 shilonbangla.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com