সোমবার, ২৬ অগাস্ট ২০১৯, ১২:১১ পূর্বাহ্ন

প্রিয়া সাহার খুঁটির জোর যেখানে

প্রিয়া সাহার খুঁটির জোর যেখানে

প্রিয়া সাহার খুঁটির জোর যেখানে

আহমদ যাকারিয়া : “প্রিয়া সাহা” বর্তমান সরকারের সাথে খুব কানেকটেড, সরকারের খুব কাছের লোক। তার স্বামীকে সরকার “দুদক’র” একজন পরিচালক পদে রেখেছে।

সরকার হয়তো জানে না যে, তারা আসলে সরকারের বন্ধু নয়। বরং সরকার ও দেশের শত্রু ওরা। ওদের উদ্দেশ্য আওয়ামলীগকেও সার্ভ করা নয়। বরং আওয়ামী লীগকে ব্যবহার করে নিজের স্বার্থসিদ্ধি করাই হচ্ছে ওদের উদ্দেশ্য।

ওদেরকে দুর্বল ভাবার কোন সুযোগ নেই। কত বড় খুঁটির জোর হলে কেউ আমেরিকার প্রেসিডেন্টের সাথে কথা বলার জন্য হোয়াইট হাউজে যায়, সেটা বুঝতে হবে। কত বড় খুঁটির জোর হলে, দশটা স্কুলে কোন লিখিত অনুমতি ছাড়াই তারা প্রসাদ বিতরণ করে এবং হরে কৃষ্ঞ এর মন্ত্র যপাতে বাধ্য করে, সেটাও ভাবার বিষয়। কত বড় খুঁটির জোর হলে দেশের মূল ধারার প্রায় অধিকাংশ পত্রিকা তাদের সার্ভিস দেয়, এসব দেখতে হবে।

কথায় বলে, বকরী নাচে খুঁটির জোরে। বকরী যখন এভাবে নাচতেছে, নিশ্চয় খুঁটির জোর অনেক বেশী। বুঝতে হবে।

তারা দুর্বল না, বরং আমরা হলাম দুর্বল। আমরা সংখ্যায় বেশী কিন্তু ডিস ইউনাইটেড। সমাধান একটাই, আমাদের ঐক্যের বন্ধন দৃঢ় করতে হবে। সবাই এক থাকতে হবে। সবকিছু নিয়ে নিজেদের মধ্যে মারামারি করে লাভ নেই। নিজেদের মধ্যে ঝগড়াঝাটি করে দুর্বলতা বাড়ে।

এ জন্য আত্মশুদ্ধি, আত্ম সমালোচনা দরকার। আরো দরকার নিজেদের সংশোধনের উদ্যাোগ।

সেই আহ্বান রইলো।

নাহলে পরিণতি হবে ‘জয় শ্রীরাম’ বলার জন্য মাইর খাবার। রাম মাদাভের ভিডিও আল জাজিরায় দেখছেন তো, শেষে কি বলছে? বলছে , হ্যাঁ তারা অখন্ড ভারত চায়। ঐ দিকেই এগুচ্ছে সব কিছু কিন্তু খুবই নীরবে অত্যন্ত সু-কৌশলে।।

সুতরাং এজন্য এখনই দরকার ঐক্যের সমাজ। আত্মশুদ্ধি, সংশোধন ও আত্মবিনির্মাণ।

লেখক : কলামিস্ট

নিউজটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved 2018 shilonbangla.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com