বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯, ০২:০৭ পূর্বাহ্ন

প্রথম ধাপে ইজতেমার আখেরি মোনাজাত সম্পন্ন

প্রথম ধাপে ইজতেমার আখেরি মোনাজাত সম্পন্ন

ফাইল ছবি

প্রথম ধাপে ইজতেমার আখেরি মোনাজাত সম্পন্ন

শীলনবাংলা রিপোর্ট : মধুর আয়োজন বিশ্ব ইজতেমার প্রথম ধাপে ইজতেমার আখেরি মোনাজাত সম্পন্ন হয়েছে। টঙ্গীর তুরাগ তীরের বিশ্ব ইজতেমা ময়দানে অনুষ্ঠিত হয়েছে মাওলানা জুবায়ের অনুসারীদের বিশ্ব ইজতেমার প্রথম ধাপের আখেরি মোনাজাত।

দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাত শেষ হয়েছে। শনিবার সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে শুরু হয়ে মোনাজাত শেষ হয় ১১ টা ৬ মিনিটে।

প্রথম পর্বের মোনাজাতে লাখ-লাখ মুসল্লি অংশ নেন। আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হল ৫৪তম এ আয়োজনের প্রথম পর্ব। কাল রোববার বাদ ফজর দ্বিতীয় পর্ব শুরু হয়ে সোমবার আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে এবারের বিশ্ব ইজতেমা

এর আগে গাজীপুর মেট্টাপুলিটন পুলিশের কমিশনার ওয়াই এম বেলালুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, সকাল সাড়ে ১০টার দিকে আখেরি মোনাজাত শুরু হবে এবং মোনাজাত পরিচালনা করবেন বাংলাদেশের হাফেজ মাওলানা মুহাম্মদ জোবায়ের।

বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নেয়া মুসল্লিদের পাশাপাশি আখেরি মোনাজাতে শরিক হতে ঢাকা-গাজীপুরসহ দেশের বিভিন্ন জেলার ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা শনিবারও ইজতেমাস্থলে আসছেন।মোনাজাতের আগ পর্যন্ত মুসল্লিদের এ আসা অব্যাহত থাকবে।

আখেরি মোনাজাত উপলক্ষে ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণে শুক্রবার মধ্যরাত থেকে আখেরি মোনাজাত শেষ না হওয়া পর্যন্ত ঢাকা-ময়মনসিংহ মহসড়কের জয়দেবপুর চান্দনা চৌরাস্তার ভোগড়া বাইপাস, টঙ্গী ব্রীজ, আশুলিয়া সড়কের কামারপাড়া ব্রীজ ও টঙ্গী-নরসিংদী সড়কের মীরেরবাজার দিয়ে সব ধরনের যানবাহন টঙ্গীতে প্রবেশ বন্ধ রাখা হয়েছে।

গাজীপুর মেট্টাপুলিটন পুলিশের কমিশনার ওয়াই এম বেলালুর রহমান জানান, বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নেয়া মুসুল্লিরা ছাড়াও অসংখ্য মুসল্লি আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে ইজতেমাস্থলে আসেন। এজন্য ট্রাফিক ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। শুক্রবার মধ্যরাত হতে টঙ্গী ব্রীজ, কামারপাড়া ব্রীজ, ভোগড়া বাইপাস, মীরেরবাজার এলাকায় ব্যারিকেড দিয়ে ইজতেমা সংলগ্ন এলাকায় যানবাহন চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। ইজতেমা শেষে মুসল্লিদের যাওয়ার সময়ও একই ব্যবস্থাপনা অব্যাহত থাকবে।

এদিকে যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকায় মোনাজাতে শরিক হতে ভোর থেকে ধর্মপ্রাণ মুসিল্লরা হেঁটেই ইজতেমাস্থলে আসছেন। মহাসড়ক-সড়ক গুলোতে যেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদের কাফেলা। অনেকে ট্রেনে করে অথবা ওইসব এলাকার অলিগলি রাস্তা দিয়ে রিকশা-ভ্যান, আটোরিকশা, মোটরসাইকেল ইত্যাদি হালকা যানবাহনে করে টঙ্গীতে আসতে দেখা গেছে। গাড়ি বন্ধ থাকায় টঙ্গীগামী ট্রেনগুলো ছিলো মানুষে ঠাসা। আবার হাঁটা এড়াতে অনেক মুসল্লি শুক্রবার রাতেই ইজতেমাস্থলে পৌঁছেছেন।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা মধ্য দিয়ে চলছে এবারের ৪ দিনব্যাপী বিশ্ব ইজতেমা। পোশাকে-সাদা পোশাকে প্রায় ১০ হাজার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য বিশ্ব ইজতেমা এলাকায় মোতায়েন রয়েছে। রয়েছে আকাশে হেলিকপ্টার ও তুরাগ নদীতে নৌ টহল।

এর আগে ১৫ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার বাদ ফজর আম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয় বিশ্ব ইজতেমার আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম।

শনিবার আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হলো মাওলানা জোবায়ের অনুসারিদের ইজতেমা। এরপর দুইদিন (১৭ ও ১৮ ফেব্রুয়ারি) একই ময়দানে ইজতেমার কার্যক্রম পরিচালনা করবেন সাদপন্থী মাওলানা মোশারফ হোসেন ও ওয়াসিফুল ইসলামের অনুসারীগণ। ১৮ ফেব্রুয়ারি তাদের আখেরি মোনাজাত হবে। এরমধ্য দিয়ে শেষ হবে এবারের ৪ দিনব্যাপী ৫৪তম বিশ্ব ইজতেমার কার্যক্রম।

নিউজটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved 2018 shilonbangla.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com