শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ০২:৩৭ অপরাহ্ন

নামাজের জন্য শিবমন্দিরে জায়গা দিলো হিন্দুরা

নামাজের জন্য শিবমন্দিরে জায়গা দিলো হিন্দুরা

নামাজের জন্য শিবমন্দিরে জায়গা দিলো হিন্দুরা

শীলনবাংলা ডটকম (লখনৌ) : শুনতে অদ্ভুত লাগতে পারে। বিস্ময়কর হওয়াটা কঠিন কিছু নয়। অস্বাভাবিক অনেক ঘটনাই ঘটে যা আমরা সহজে নিতে পারি না। এই ভারতের বিভিন্ন জায়গায় সত্যিকার অর্থেই মুসলমানদের কঠিন চাপের মধ্য দিয়ে দিন কাটাচ্ছেন। আবার কোথাও কোথাও হিন্দুরা এমন নজীরও স্থাপন করছেন- যা অকল্পনীয়। সালাত আদায়ের জন্য নিজের ঘর নয় সরাসরি মন্দিরের দরজাই খুলে দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো তারা। রোববার কয়েকজন মুসলিম যখন জৈনপুর গ্রামে শিবমন্দিরের কাছে উপস্থিত হন তখন তাদের দুপুরের নমাজ পড়ার সময় হয়ে যায়৷ কিন্তু ওই ধর্মীয় জমায়েতের কারণেএতোটাই ভিড় ছিল যে নমাজ পড়ার মতো স্থান তারা পাচ্ছিল না। সেখানেই গ্রামের হিন্দুরা এ ব্যবস্থা করে দেন।

গোহত্যা থেকে হিংসা, সেখান থেকে পরিস্থিতি উত্তপ্ত, এক পুলিশ আধিকারিক সহ দুই জনের মৃত্যু, আর এই নিয়েই শাসকদল এবং বিরোধী পক্ষে একে অপরকে কাদা ছোঁড়াছুঁড়ি, এই সব নিয়েই এই মুহূর্তে উত্তপ্ত উত্তরপ্রদেশের বুলন্দশহর৷

একদিকে যেখানে এই অবস্থা সেখানে এই স্থানেই অন্যদিকে গড়ে উঠল নজির৷ মুসলমানদের নমাজের জন্য মন্দির খুলে দিলেন হিন্দুরা৷ সোশ্যাল মিডিয়া থেকে সংবাদ মাধ্যমে ইতিমধ্যেই এই খবর থেকে তার ছবি ভাইরাল হয়ে গিয়েছে৷ চলুন বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক ঘটনাটি৷

জানা গিয়েছে, বুলন্দশহরে মুসলমানদের ধর্মীয় জমায়েত চলছে৷ এতে যোগ দিতে দূর দূর থেকে মুসলিমরা আসছেন এখানে৷ রবিবার কিছু মুসলিম যখন জৈনপুর গ্রামে শিবমন্দিরের কাছে উপস্থিত হন তখন তাদের দুপুরের নমাজ পড়ার সময় হয়ে যায়৷ কিন্তু ওই ধর্মীয় জমায়েতের কারণেএতোটাই ভিড় ছিল যে নমাজ পড়ার মতো স্থান তারা পাচ্ছিল না৷

এমতাবস্থায় তাদের পরিষ্কার এবং ফাঁকা স্থানের প্রয়োজন ছিল, তাই তারা সেই গ্রামের হিন্দুদের কাছে যান৷ গ্রামের প্রধান গঙ্গা প্রসাদ জানান, তাঁরা নমাজের জন্য শিবমন্দিরের ক্যাম্পাস খুলে দেবেন বলে সিদ্ধান্ত নেন৷

এক গ্রামবাসীর মতে, সেখানে যতজন মুসলমান উপস্থিত ছিলেন সকলেই তারপর নমাজ পড়তে পারে ন৷

জৈনপুর গ্রামের এক বাসিন্দা সাহেব সিং বর্মা এক সংবাদ মাধ্যমকে জানান, এই বিষয়টি সম্পর্কে সকলে না জানলেও, মন্দিরে নমাজ পড়ার ছবিটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়৷ খবরটি অসাম্প্রদায়িকতার একটি বড় নিদর্শন হিসেবে খ্যাতি পায়।

নিউজটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved 2018 shilonbangla.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com