সোমবার, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:৪৮ অপরাহ্ন

কুরবানি পরবর্তী আমাদের শিক্ষা

কুরবানি পরবর্তী আমাদের শিক্ষা

কুরবানি পরবর্তী আমাদের শিক্ষা

তামান্না আক্তার

ত্যাগ,দান ও কুরবানির শিক্ষা নিয়ে মুসলিম ধর্মাবলম্বীদের কাছে প্রতিবছর উপস্থিত হয় পবিত্র ক্ষণ, ঈদুল আজহা। ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে সকলের মাঝে আনন্দের জোয়ার থাকলেও ঈদের সবচেয়ে আকর্ষণীয় মুহূর্ত পশু কুরবানি করা। গ্রামীন জনগোষ্ঠীর অনেকে তো ঈদুল আজহাকে আবার কুরবানির ঈদ নামে অভিহিত করেন। এ ঈদকে কেন্দ্র করে পশু কুরবানি করা হলেও সেটা রূপকার্থে আল্লাহর সন্তুষ্টি আর নিজের অহংবোধ কিংবা দাম্ভিকতাকে কুরবানি করা। কারণ ঈদুল আজহা থেকে একদিকে যেমন নিজের লালসার বেড়াজাল ছিন্ন করে প্রভুর সন্তুষ্টির জন্য নিজের কষ্টার্জিত অর্থ খরচ করতে হয় অন্যদিকে নিজের দাম্ভিকতা ও ব্যক্তিস্বার্থকে বলি দিয়ে সকলের মুখে হাসি ফোটানোর চেষ্টা করা হয়। কিন্তু দাম্ভিকতা ও ব্যক্তিস্বার্থ দূরিভূত করার শিক্ষা কেবল ঈদের দিনের জন্য নয়। বরং এ ঈদ আমাদেরকে শিক্ষা দিয়ে যায় জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে আমাদের অহংকার, দাম্ভিকতা, ব্যক্তিস্বার্থের উর্ধ্বে থেকে সহনশীল মানসিকতা গড়ে তোলা। তাই আমাদের ব্যক্তি জীবন থেকে শুরু করে সামাজিক, রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, সকল ক্ষেত্রে কুরবানির শিক্ষার প্রতিফলন হওয়া দরকার।

প্রথমত, আমাদের প্রত্যেকের ব্যক্তি জীবনকে কুরবানির শিক্ষার মাধ্যমে ঢেলে সাজাতে হবে। সমাজের একজন ব্যক্তিসত্বা হিসেবে আমার অবস্থান কি সমাজের সবার থেকে উঁচু স্তরের নাকি আমিও সাধারণ সকলের মত একজন, এটা মূখ্য কোন বিষয় না। কুরবানি থেকে শিক্ষা নিতে হবে সহনশীলতার। সমাজের যত উচ্চপদস্থ ব্যক্তি হোক না কেন তার দ্বারা সমাজ যদি উপকৃত না হয় তবে সমাজের জন্য তার অবদান শূন্য। এক্ষেত্রে সহনশীল ব্যক্তি মানসিকতা তৈরী করতে পারলে সকলকে নিয়ে স্বাচ্ছন্দ্য জীবন পরিচালনা করা সম্ভব। এছাড়াও আমাদের ব্যক্তি জীবনে অতিরিক্ত অর্থ লালসা বা কার্পন্য দূরীভূত করতে হবে। মহান ঈদুল আজহা আমাদেরকে সে শিক্ষা দিয়ে যায়। কারণ অতিরিক্ত অর্থ লালসা কিংবা কার্পণ্য দূরিভূত করা সম্ভব হলে সমাজে অনৈতিক প্রভুত্ব কিংবা অর্থের জন্য শোষণ বন্ধ হবে। শোষণহীন সমাজে শান্তি অবশ্যম্ভাবী। তাই শান্তিপূর্ণ সমাজ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে নিজেদের ব্যক্তি জীবনকে কুরবানির শিক্ষার মাধ্যমে ঢেলে সাজাতে হবে।

দ্বিতীয়ত, সামাজিক ক্ষেত্রে কুরবানির শিক্ষা বিশেষভাবে গুরুত্বের দাবি রাখে। মানুষ সামাজিক জীব তাই সমাজবদ্ধ হয়ে মানুষের বসবাস। আবার প্রভুর কৃপায় সকলের অবস্থান ভিন্ন ভিন্ন। তাই সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে সবাইকে বাঁচতে হয়। কারণ সকল পরিবার সকল কিছু যথাসময়ে জোগাড় করতে পারে না। পবিত্র ঈদুল আজহা আমাদেরকে সহযোগিতার মানসিকতা গড়ে তুলতে সাহায্য করে। মহান আল্লাহ পাকের বিধান অনুযায়ী কুরবানিকৃত পশুর গোশত গরীব, অসহায়, নিকটাত্মীয় সবার মাঝে বন্টন করার কথা বলা হয়েছে। এমন সহযোগিতার মাধ্যমে সমাজে সকলের মাঝে বৈষম্য দূরিভূত হয়ে শান্তি বিরাজ করে। কুরবানির এ মহান শিক্ষাটি আরো বেশি বেগবান করতে হবে। যারা পশু কুরবানি করতে সক্ষম নয় তারা যেন নিজেদেরকে অবহেলিত মনে না করতে পারে। সেক্ষেত্রে সকলের মাঝে সহযোগিতার মানসিকতা বৃদ্ধি করতে হবে। কুরবানির এ মহান শিক্ষার মাধ্যমে সকল ক্ষেত্রে সাহায্যের মাধ্যমে আমরা একটি ভারসাম্যপূর্ণ সমাজ গড়ে তুলতে পারি। যেখানে বৈষম্য দূরিভুত হয়ে ভালোবাসা বিরাজ করবে, থাকবে না হিংসার কালো মেঘ।

তৃতীয়ত, রাজনৈতিক জীবন মনে হলে আমাদের স্মরণ হয় হিংসা, রেষারেষি কিংবা ক্ষমতার যুদ্ধ। যে যুদ্ধে হারাতে হয় হাজারো প্রিয়জনকে। এ ক্ষেত্রটিতেও কুরবানির মহান শিক্ষার প্রতিফলন দরকার। ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে অনেক সময় আমরা গোষ্ঠীবদ্ধ হয়ে বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করি। আবার সকলে মিলেমিশে ঈদ অনুষ্ঠান সুন্দরভাবে সম্পন্ন করি। ঈদের অনুষ্ঠানে থাকে না কোন ঝগড়া কিংবা ক্ষমতার দ্বন্দ্ব। কারণ সেখানে সকলের মাঝে সহযোগিতার মানসিকতা বিরাজ করে। এমন মানসিকতা আমাদের রাজনৈতিক জীবনে গড়ে তুলতে হবে। সকলের প্রতি সহনশীল আচরণের পাশাপাশি সকলের মতামতের গুরুত্ব দিতে হবে। আমাদের মাঝে রাজনৈতিক আদর্শের ভিন্নতা থাকতে পারে তবে দিনশেষে আমরা সবাই মানুষ এবং ভাই ভাই এমন ইতিবাচক মানসিকতা গড়ে তুলতে হবে।

পরিশেষে, এবারের ঈদুল আজহা উদযাপন ভিন্ন ধরনের। আনন্দের সুরে বেজে উঠেছে দুঃখের বীণা। মহামারী করোনা ভাইরাসের মধ্যে ঈদুল আজহা উদযাপনে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা ও পরবর্তীতে এমন ভাইরাস আর না দেখতে হয় সে জন্য সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। জীবনের সকল ক্ষেত্রে পবিত্র ঈদুল আজহার শিক্ষার বাস্তবায়ন ঘটাতে হবে।

লেখক : শিক্ষার্থী, সমাজবিজ্ঞান বিভাগ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved 2018 shilonbangla.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com